আকাশসীমায় প্রবেশে বাধায় সার্বিয়া যেতে পারলেন না রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

 

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের আজ সোমবার সার্বিয়া সফরে যাওয়ার কথা ছিল। তবে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে সার্বিয়ার প্রতিবেশী তিন দেশ। লাভরভকে বহনকারী উড়োজাহাজকে ওই দেশগুলোর আকাশসীমায় প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। এতে বাধ্য হয়েই সফর স্থগিত করতে হয়েছে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে।

আজ সোমবার মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ফেব্রুয়ারি মাসে ইউক্রেনে হামলা শুরুর পর ইউরোপের যে কয়েকটি দেশকে মস্কো পাশে পেয়েছে, সেগুলোর একটি সার্বিয়া। আজ সার্বিয়ার রাজধানী বেলগ্রেডে লাভরভসহ দুই দেশের শীর্ষ কর্মকর্তাদের বৈঠকে বসার কথা ছিল।

সের্গেই লাভরভের সফর স্থগিতের খবর নিশ্চিত করেছেন রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা। তিনি বলেন, ‘আলোচনায় অংশ নিতে রাশিয়ার প্রতিনিধিদলের বেলগ্রেডে পৌঁছানোর কথা ছিল। তবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ন্যাটোর সদস্যদেশগুলো আকাশসীমা বন্ধ করে দিয়েছে।’

সার্বিয়ার একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর বলছে, সের্গেই লাভরভের উড়োজাহাজ প্রবেশে বাধা দেওয়া দেশ তিনটি হলো, বুলগেরিয়া, মেসেডোনিয়া ও মন্টেনিগ্রো। দেশগুলোর এমন পদক্ষেপে চটেছে রাশিয়া। ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ একে ‘শত্রুতামূলক কর্মকাণ্ড’ আখ্যায়িত করেছেন।

পেসকভ সাংবাদিকদের বলেন, এ ধরনের পদক্ষেপ উচ্চপর্যায়ের কূটনৈতিক বৈঠকের সময়সূচিতে সমস্যা ডেকে আনবে। তবে এভাবে মিত্রদেশগুলোর সঙ্গে রাশিয়ার যোগাযোগ বন্ধ করা যাবে না।

সার্বিয়া সফর ঘিরে তিন দেশের এমন আচরণকে ‘অপ্রত্যাশিত’ বলে উল্লেখ করেছেন সের্গেই লাভরভ। বলেছেন, এখন তিনি সার্বিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে মস্কো সফরের আহ্বান জানাবেন। তাঁর ভাষায়, ‘আসল বিষয়টি হলো, সার্বিয়ার সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক কেউ নষ্ট করতে পারবে না।’

সূত্র প্রথম আলো

Leave a Reply

Your email address will not be published.